হিরো আলম সহ তার দুই সহযোগীর নামে শ্রীপুর থানায় অভিযোগ

প্রকাশিত: 2022-08-08
news-banner
আশিকুর রহমান সবুজঃ অর্থ আত্মসাৎ ও হত্যার হুমকির অভিযোগে হিরো আলমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে রুবেল মুন্সি (২২) নামে এক তরুণ।

গত শুক্রবার হিরো আলম ও তার দুই সহযোগীকে অভিযুক্ত করে গাজীপুরের শ্রীপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান শনিবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রুবেল মুন্সি কুমিল্লার মতলব উপজেলার বড়ইলদা গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। তিনি গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার ভাংনাহাটি এলাকার হাজী আব্দুছ ছাত্তারের বাড়ির ভাড়াটিয়া। অভিযুক্তরা হলো বগুড়া জেলা সদর থানার রুলিয়া বাজার এলাকার আশরাফুল হোসাইন @ হিরো আলম (৩৫), মো. লিমন (২৫) এবং মো. শুভ (৩০)।

অভিযোগে মুন্সি উল্লেখ করেন, প্রায় ৫ মাস পূর্বে হিরো আলমের মালিকানাধীন অনলাইনভিত্তিক প্রতিষ্ঠানে ১০ হাজার টাকা বেতনে চাকরি করতেন তিনি। ২০২১ সালে তার কাছ থেকে হিরো আলম ২০ হাজার টাকা ধার নিয়েছিলেন। এ ছাড়া তিনি সাত মাসের বেতনের ৭০ হাজার টাকা হিরো আলমের কাছে জমা রাখেন। পরবর্তীতে তিনি মোট পাওনা ৯০ হাজার টাকা ফেরত চাইলে হিরো আলম দেই দিচ্ছি বলে টালবাহানা শুরু করেন।


একপর্যায়ে পাঁচ মাস আগে চাকরি ছেড়ে তিনি গাজীপুরের শ্রীপুরে ইয়ান ফুড প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় হিরো আলমসহ অভিযোগে উল্লেখিত দুইজনকে সঙ্গে নিয়ে আমার বর্তমান কর্মস্থল ইয়ার ফুড কারখানার সামনে আসে হিরো আলম। পরে আমাকে টাকা ফেরত দেয়ার কথা বলে ফোন করে অফিস থেকে বের হতে বলে। আমি অফিস থেকে বের হলে হিরো আলমের সঙ্গে থাকা প্রাইভেটকারে তুলে মেডিকেল মোড়ে নিয়ে যায়।

সেখানে অজ্ঞাত লোকদের সহযোগিতায় আমার কাছ থেকে একটি ল্যাপটপ, জি-মেইল আইডি, ফেসবুক আইডি হ্যাক করে তাকে রাত আনুমানিক ৩টায় ছেড়ে দেয়। পরে এসব বিষয়ে আইনের আশ্রয় নিলে এবং বেশি বাড়াবাড়ি করলে আমাকে মারপিটসহ জানমালের ক্ষতি করার হুমকি দেয়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, হিরো আলমের বিরুদ্ধে রুবেল নামে এক ছেলে গত শুক্রবার লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। একজন অফিসারকে (এস আই) বিষয়টি তদন্ত করার জন্য দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

আপনার মন্তব্য ছেড়ে দিন