শিরোনাম
টাইপ-২ ডায়াবেটিস চিকিৎসায় নতুন উপায় উদ্ভাবন – প্রথম বেলা

টাইপ-২ ডায়াবেটিস চিকিৎসায় নতুন উপায় উদ্ভাবন

অস্ট্রেলীয় গবেষকরা টাইপ-২ ডায়াবেটিস চিকিৎসায় নতুন একটি উপায় উদ্ভাবন করেছেন। বিশ্বে ৪০ কোটি মানুষ এ ধরনের ডায়াবেটিসে ভুগছেন।

ইউনিভার্সিটি অব মেলবোর্নের গবেষকরা দাবি করেছেন, মানুষের শরীরে প্রাকৃতিকভাবে তৈরি একটি প্রোটিন ব্যবহার করে টাইপ-২ ডায়াবেটিসের চিকিৎসা বর্তমান পদ্ধতির চেয়ে অনেক বেশি কার্যকর হবে। বর্তমান পদ্ধতি স্বল্পস্থায়ী এবং এর উল্লেখযোগ্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে।

সায়েন্স ট্রান্সলেশনাল মেডিসিনে এ গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। গবেষকরা এসএমওসি-১ নামে একটি প্রোটিনের সন্ধান পেয়েছেন, এটি প্রাকৃতিকভাবেই মানুষের লিভারে তৈরি হয়। এই প্রোটিন রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা কমিয়ে দিতে পারে। এসএমওসি-১ রক্তে উচ্চমাত্রায় গ্লুকোজ রয়েছে- এমন ডায়াবেটিক রোগীর চিকিৎসায় কার্যকর সম্ভাবনা তৈরি করেছে।

গবেষকরা কৃত্রিমভাবে উদ্ভাবিত এসএমওসি-১ নিয়ে প্রাণীদেহে পরীক্ষা চালিয়ে কার্যকরভাবে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন।

মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র গবেষক ম্যাগডালিন মন্টগোমারি বলেছেন, ‘মেটফর্মিন নামে বর্তমানে ব্যবহৃত ওষুধের চেয়ে রক্তের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণে এটি আরও বেশি কার্যকর। এটি ফ্যাটি লিভার এবং রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রাও হ্রাস করে, যা টাইপ-২ ডায়াবেটিক রোগীদের সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা।’

তিনি বলেন, বিশ্বে বিপুল সংখ্যক মানুষ টাইপ-২ ডায়াবেটিস আক্রান্ত এবং তাদের সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে। নতুন চিকিৎসা পদ্ধতি এ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে। রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা কমানোর জন্য যে কোনো থেরাপিতে রোগীর দেহে ব্যাপক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।

মন্টগোমারি বলেন, তারা পরবর্তী পদক্ষেপ হিসেবে মানবদেহে এই প্রোটিনের পরীক্ষা চালাবেন।

0 Reviews

Write a Review

Read Previous

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মেইল ভোট শুরু

Read Next

বিশ্বের নতুন হলুদ পদ্ম বাংলাদেশে

%d bloggers like this: