শিরোনাম
আর কখনোই খুলবে না স্টার সিনেপ্লেক্স – প্রথম বেলা

আর কখনোই খুলবে না স্টার সিনেপ্লেক্স

মহামারি করোনার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশের সব সেক্টর। এর থেকে বাদ পড়েনি সিনেমা জগৎও। করোনার কারণে চলচ্চিত্র শিল্পের অবস্থা দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে। একের পর বন্ধ হচ্ছে সিনেমা হল। এবার বন্ধ হলো দেশের জনপ্রিয় সিনেমা হল স্টার সিনেপ্লেক্স।  বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন স্টার সিনেপ্লেক্স চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান।

করোনা মহামারির মধ্যে কয়েক মাসের ভাড়া পরিশোধ করতে না পারার কারণে বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষকে তাদের ছবিঘর বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে বলে জানান প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান। কোনো উপায় না পেয়ে স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষও তাদের ছবিঘর বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছে। স্টার সিনেপ্লেক্স বন্ধ হওয়ার খবরে ঢাকা শহরের সিনেমাপ্রেমী দর্শক হতাশ হয়েছেন। বিনোদন অঙ্গনের অনেক পরিচালক, অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলী স্টার সিনেপ্লেক্সের হঠাৎ বন্ধ হয়ে যাওয়ার খবরকে সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বড় নেতিবাচক ঘটনা মনে করছেন।

মাহবুব রহমান বলেন, মহামারির মধ্যে সিনেপ্লেক্স বন্ধ ছিল, ব্যবসা হয়নি। তাই আমরা ভাড়া দিতে পারিনি। ভাড়া দেওয়াটা সম্ভবও ছিল না, কারণ ভাড়া ছিল প্রচুর। ব্যবসা না হলে তো মোটেও সম্ভব না। আমাদের ব্যবসার অর্ধেকই চলে যেত ভাড়া খাতে। যেখান থেকে শুরু করেছিলাম, সেখানটাই বন্ধ হয়ে গেল।

দেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের বিশ্বমানের প্রেক্ষাগৃহ উপহার দেওয়ার লক্ষ্যে ২০০৪ সালের ৮ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে যাত্রা শুরু দেশের প্রথম মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল স্টার সিনেপ্লেক্সের। এখন সেখানে কি সিনেমা হল থাকবে? এমন প্রশ্নে মাহবুব রহমান বলেন, ‘আমরা আমাদের যাবতীয় অবকাঠামো সরিয়ে নেব। শুনেছি সেখানে ফুডকোর্ট করা হবে। এর বেশি আপাতত কিছু জানি না।’

বসুন্ধরা সিটি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের ইনচার্জ ও জ্যেষ্ঠ নির্বাহী পরিচালক (অ্যাকাউন্ট অ্যান্ড ফিন্যান্স) শেখ আবদুল আলীমের গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সিনেপ্লেক্স বন্ধের বিষয়টি আদিষ্ট হয়ে আমি শুধু এক্সিকিউট করছি, এর বেশি আমি কিছু জানি না। এটা আমাদের টপ ম্যানেজমেন্টের ব্যাপার।

0 Reviews

Write a Review

Read Previous

মির্জা ফখরুল বলেছেন: আ.লীগ ‘পুতুল সরকার’ হিসেবে কাজ করছে

Read Next

ওমর সানী বলেন:বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর সময়ের চশমাটি তার বাবার দেয়া

%d bloggers like this: