শিরোনাম
ম্যানসিটিতে মেসির পাঁচ বছরের চুক্তি – প্রথম বেলা

ম্যানসিটিতে মেসির পাঁচ বছরের চুক্তি

লিওনেল মেসি পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন তিনি বার্সেলোনা ছাড়তে চান। তার গন্তব্যও এবার জানিয়ে দিলো ফক্স নিউজ। ডেইলি রেকর্ডের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি বলেছে, পাঁচ বছরের চুক্তিতে ম্যানচেস্টার সিটিতে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

চ্যাম্পিয়নস লিগে স্প্যানিশ ক্লাবের ব্যর্থতা এবং পেপ গার্দিওলার সঙ্গে আবার কাজ করার আগ্রহই মেসিকে ম্যানচেস্টারমুখী করছে বলে জানা গেছে।

তবে ম্যানচেস্টার ক্লাবটির সঙ্গে মেসির চুক্তি করা সহজ হবে না। স্প্যানিশ জায়ান্টদের সঙ্গে এখনও এক বছরের চুক্তি আছে ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডের। তার রিলিজ ক্লজ যে ৭০ কোটি ইউরো, ফ্রি ট্রান্সফারে গেলেও তা মেটাতে হবে চুক্তি করা ক্লাবকে।

অবশ্য সিটিজেনদের আশা, ন্যু ক্যাম্প থেকে ফ্রি ট্রান্সফারে মেসিকে ছাড়তে তার সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনায় পৌঁছাবে বার্সা। এরই মধ্যে ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে নিতে আর্থিক শর্তগুলোর ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছে ম্যানসিটি।

ডেইলি রেকর্ডের ডানকান ক্যাসলস এক প্রতিবেদনে বলেছে, সিটির মালিক ও মেসি ৭০ কোটি ইউরোতে পাঁচ বছরের জন্য মেসির সঙ্গে চুক্তি করতে রাজি হয়েছেন।

এই চুক্তি হয়ে গেলে মেসিকে প্রিমিয়ার লিগে তিন বছর সিটির জার্সিতে খেলতে হবে এবং বাকি দুই বছর সিটি ফুটবল গ্রুপের আরেক ক্লাব নিউই ইয়র্ক সিটি এফসিতে খেলবেন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ক্ষতিপূরণ প্যাকেজের অংশ হিসেবে ম্যানসিটি ন্যায্য অংশিদারিত্বের প্রস্তাব দিতে পারে মেসিকে।

চুক্তি বাস্তবায়ন হলে ক্যারিয়ারের বাকি সময়ের জন্য বিশ্বের সর্বোচ্চ উপার্জনকারী ফুটবলারের মর্যাদা পেতে যাচ্ছেন এলএমটেন। তবে মেসিকে অর্থ নয়, টানছেন গার্দিওলা। আর্জেন্টাইন তারকার এক ঘনিষ্ঠ সূত্র বলেছে, ‘মেসি মনে করে গার্দিওলাই তার কাছ থেকে সেরা ফুটবল বের করে আনতে পারে এবং সে এটার পুনরাবৃত্তি চায়।’

তবে এই চুক্তির ব্যাপারটি নির্ভর করছে বার্সা তাদের সেরা খেলোয়াড়কে এই মৌসুমে ফ্রি ট্রান্সফারে ছাড়তে রাজি হয় কিনা। বার্সা সূত্রে জানা গেছে, প্রেসিডেন্ট হোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ ‘মেসিকে বদলি করা প্রেসিডেন্ট হিসেবে সবার মনে জায়গা করে নিতে চান না।’

তবে ঋণে ভারাক্রান্ত স্প্যানিশ ক্লাব নিজেদের প্রশ্ন করতে পারে- সর্বোচ্চ বেতনভুক্ত খেলোয়াড় যখন ক্লাব ছাড়তে এতই মরিয়া, তখন তাকে ধরে রাখার কোনও মানে হয়?

0 Reviews

Write a Review

Read Previous

জাল ফেললেই ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা পড়ছে

Read Next

অপেক্ষায় ৬শ ট্রাকপারের , পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় নাব্যতা সংকট

%d bloggers like this: