শিরোনাম
দেবিদ্বার মোহনপুর স্কুলে টাকা আত্নসাতের অভিযোগে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন – প্রথম বেলা

দেবিদ্বার মোহনপুর স্কুলে টাকা আত্নসাতের অভিযোগে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

গোলাম রাব্বি প্লাবন, দেবিদ্বার প্রতিনিধি
কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার  উপজেলার ঐতিহ্যবাহী মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের  সাবেক সভাপতি
শাহাদাত হোসেন মিঠু এবং সাবেক  ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হরেকৃষ্ণ দেবনাথের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গত ১১-০৮-২০২০ ইং হওয়া সংবাদ সম্মেলনের বিপরিতে শুক্রবার সকাল ১০ ঘটিকায় সাহাদত হোসেন মিঠুর বাড়ির আঙ্গিনায় মিথ্যা অপবাদ  এবং হয়রানির প্রতিবাদে  সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগীরা।
এসময় মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সাবেক ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হরেকৃষ্ণ দেবনাথ এবং সাবেক সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন মিঠু নিজেদের লিখিত বক্তব্য তুলে ধরে অভিযোগকারী ময়নাল হোসেনের সংবাদ সম্মেলনে আনীত অভিযোগ মিথ্যা এবং উদ্দেশ্যমুলক বলে দাবী করে ব্যাখ্যা প্রদান করেন।
সাবেক ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তার কর্মকালীন সময়ে কোন প্রকার অনিয়ম দুর্নীতির মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ এর মত ঘৃণ্য কাজ হয়নি বলে দাবী করেন। তারই সাথে তিনি স্বীকার করেন, নিজের অজান্তে পদ্ধতিগত কিছু ভুল যা উনার প্রধান শিক্ষক হিসাবে কাজ করার পুর্ব অভিজ্ঞতা না থাকায় ঘটতে পারে, যার কারনে তিনি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে জবাবদিহি করেছেন। কিন্তু নিজেদের অন্তঃকলহের মিথ্যা অপবাদ দিয়ে আমাকে এই বৃদ্ধ বয়সের অবসরকালীন সময়ে মানষিক ও স্নায়ুবিক চাপ প্রদান কোনভাবেই কাম্য নয় এবং বয়সের সাথে শারীরিক এই অবস্থায় অযথা মানষিক চাপ নিতে পারছি না। তাই তিনি আবেঘন আকুতি নিয়ে সবার উদ্দেশ্যে এই অন্তঃকলহ না করে স্কুলের অতীত ঐতিহ্য ধরে রাখার প্রত্যয়ে সবাইকে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।
এদিকে মেয়াদ উত্তীর্ণ সভাপতি ময়নাল হোসেন পাঁচ মাস যাবত বহাল তবিয়তে থেকে উল্টো  বর্তমানে নতুন করে আবারো নিজে সভাপতি এবং অযোগ্য সাব্যস্থ করার জন্য ষড়যন্ত্র করছেন বলে দাবী সাবেক সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন মিঠুর। তিনি তার বক্তব্যে আরো বলেন ৩ বছর আগের মিমাংসিত কিছু ইস্যুকে পুঁজি করে তাদেরকে হয়রানি করছেন  এবং নিজে এই স্কুলের আধিপত্য ধরে রেখে একছত্র প্রভাব বিস্তারের যে নিল নকশা আঁকছেন তা আমরা আইনি এবং সামাজিক প্রতিরোধের মাধ্যমেই জবাব দিয়েছি এবং যতসামান্য যা বাকি আছে তা দেয়া হবে।
এ ছাড়া ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে নিজ স্বার্থ হাসিলের জন্য স্কুলের কেরানির (একই বাড়ির) মাধ্যমে অনেক খুটিনাটি বিষয় পদ্ধতিগত ত্রটি দেখিয়েছেন, যা পরবর্তীতে চ্যালেঞ্জে টিকবে না এবং তারই সাথে হাইকোর্টের নির্দেশনানুযায়ী সভাপতি নির্বাচনের বাধা সৃষ্টির আর কোন সুযোগ নাই সেহেতু অচিরেই সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে স্কুলের ঐতিহাসিক সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

এ বিষয়ে উপস্থিত গন্যমান্য ব্যাক্তিগনের মাঝে সবাই একবাক্যে বলেন, সাবেক ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হরেকৃষ্ণ দেবনাথ এলাকায় একজন সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যাক্তি। কিন্তু তার আমলে কিছু পদ্ধতিগত ভুল হলেও কোন প্রকার অনিয়ম দূর্নীতি হয়নি। অথচ তার বিরুদ্ধে এখন ২৫ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করা হচ্ছে যা বিশ্বাস করা কঠিন,কারন আমাদের দেখামত তিনি একজন সহজ সরল আর ভাল মনের মানুষ গড়ার কারিগর হিসাবে স্বীকৃত। আর সাবেক সভাপতি সাহাদত হোসেন মিঠুকে আবারো সভাপতি হওয়ার পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির ঘৃণ্য চক্রান্ত ছাড়া এইসব অভিযোগ আর কিছু নয় তা সকলের কাছে পানির মত পরিস্কার।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন মিঠু, মোহনপুর পাবলিক কলেজের সভাপতি আব্দুল লতিফ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমান ভুইয়া, ব্যাংকার ময়নাল হোসেন, দাতা সদস্য আলমগীর কবির, সাবেক অভিভাবক প্রতিনিধি সফিকুল ইসলাম বাদল, মিজানুর রহমান, শেখ মাহবুব হোসেন, হুমায়ন কবির প্রমুখ।

0 Reviews

Write a Review

Read Previous

বড়াইগ্রাম ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী ও শোক দিবস পালন

Read Next

পঞ্চগড়ের বোদায় ডোবার পানিতে পড়ে এক শিশুর মৃত্যু।

%d bloggers like this: