বায়তুল মোকাররমে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত

সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। করোনার সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শনিবার (১ আগস্ট) সকাল ৭টায় ঈদের প্রথম জামাত শুরু হয়। এর আগে জাতীয় মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করতে রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসেন মুসল্লিরা। প্রথম জামাতে দেশের বরেণ্য ব্যক্তিরাও অংশ নেন।প্রথম জামাতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররমের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মো. মিজানুর রহমান। এসময় মুকাব্বির হিসেবে ছিলেন মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ ক্বারী কাজী মাসুদুর রহমান। নামাজ শেষে মোনাজাতে দেশ-জাতির মঙ্গল কামনায় আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করা হয়। করোনার কারণে নামাজ শেষে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা কোলাকুলি থেকে বিরত থাকলেও পরস্পরে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।এছাড়া ঈদুল আজহায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে আরো পাঁচটি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় জামাত শুরু হয় ৭টা ৫০ মিনিটে, তৃতীয় জামাত হবে ৮টা ৪৫ মিনিটে, চতুর্থ জামাত ৯টা ৩৫ মিনিটে, পঞ্চম জামাত সাড়ে ১০টায় এবং ১১টা ১০ মিনিটে শুরু হবে শেষ ঈদ জামাত। সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদুল আজহার নামাজে অংশ নিচ্ছেন মুসল্লিরা। দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী, মুকাব্বির ছিলেন ক্বারি হাবিবুর রহমান মেশকাত। সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে শুরু হওয়া তৃতীয় জামাতে ইমামতি করবেন বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম মাওলানা এহসানুল হক, মুকাব্বির থাকবেন মাওলানা ইসহাক।চতুর্থ জামাতে ইমামতি করবেন পেশ ইমাম মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেম, মুকাব্বির থাকবেন মো. শহীদুল্লাহ। পঞ্চম জামাতে ইমামতি করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান, মুকাব্বির থাকবেন খাদেম হাফেজ মো. আব্দুল মান্নান। সর্বশেষ জামাতে ইমামতি করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সাবেক উপ-পরিচালক মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুর রব মিয়া, মুকাব্বির থাকবেন খাদেম হাফেজ মো. আব্দুর রাজ্জাক।

Read Previous

আমি একজন কর্মী হয়েই সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চাই

Read Next

শেখ হাসিনাকে মোদির ঈদ শুভেচ্ছা

%d bloggers like this: