বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে মুশফিকের ঝড়ো সেঞ্চুরি

প্রথম বেলা ডেক্স: বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসরের প্রথম ম্যাচে আবাহনী লিমিটেডের মুখোমুখি হয়েছে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব। টস জিতে ব্যাটিং করছে আবাহনী।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি তারকায় ঠাসা দল আবাহনীর। দলীয় ছয় রানের মধ্যে দুই ইনফর্ম ওপেনার লিটন দাস ও নাঈম শেখকে হারায় তাঁরা। দুজনেই ফিরে যান শূন্য রানে। এই লিটন দাসই জিম্বাবুয়ের সিরিজে মোট ৪৮৩ রান করেছিলেন।

তিন নম্বরে নামা নাজমুল হোসেন শান্তও সুবিধা করতে পারেননি। জয়নুল ইসলামের দ্বিতীয় শিকার হয়ে মাঠ ছাড়ার আগে তিনি করেন ১৫ রান।

এরপর আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ক্রিজে এসে ২০ রান করে আউট হয়ে ফিরেন। বিপ্লবের উইকেটের পর ক্রিজে আসেন তরুণ আফিফ হোসেন। আফিফ হোসেন ৩ রান করে আউট হলে মুশফিক মোসাদ্দেককে সাথে করে বড় জুটি গড়েন।

ইতিমধ্যে মুশফিক ১০ চার ও ৪ ছক্কা হাঁকিয়ে তার সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন। আর অন্যদিকে মোসাদ্দেক ধীর গতিতে খেলে মুশফিকের সঙ্গ দিচ্ছে দারুণ ভাবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

আবাহনীঃ ২০০/৫ (৪১ ওভার)

(মুশফিক ১২০*, মোসাদ্দেক ৩৬*)

আবাহনী লিমিটেড একাদশ: লিটন কুমার দাস, নাঈম শেখ, মুশফিকুর রহীম (অধিনায়ক, উইকেটরক্ষক), নাজমুল হোসেন শান্ত, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদি হাসান রানা, আরাফাত সানি, তাইজুল ইসলাম।

পারটেক্স স্পোর্টিং একাদশ: তাসামুল হক (অধিনায়ক), হাসানুজ্জামান, আব্বাস মুসা আলভি, জয়নুল ইসলাম, সায়েল আলম রিজভী, মইন খান, রনি হোসেন, মোসাদ্দেক ইফতেখার রাহী, ধীমান ঘোষ (উইকেটরক্ষক), শাহবাজ চৌহান এবং নাজমুল হোসেন মিলন।

Read Previous

সাংবাদিক শফিকুলকে খুঁজে বের করতে বাংলাদেশের প্রতি হিউম্যান রাইটস ওয়াচের আহ্বান

Read Next

ইতালির রোম থেকে ফিরলেন আরও দেড় শতাধিক

%d bloggers like this: