দক্ষিণখানে সৎ মা’য়ের অত্যাচারে প্রান গেলো সুরাইয়া আক্তার সুরার

রাজধানীর দক্ষিণখানে সুরাইয়া আক্তার সুরা (৯) নামের এক শিশুকে নির্মমভাবে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তারই সৎ মা’য়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সৎ মা শিউলী বেগমের (২৬)কে আটক করেছে পুলিশ।

দক্ষিণখান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোশারফ হোসেন মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করেছন।

এর আগে দক্ষিণখান থানাধীন নোয়াপাড়ার একটি বাসা থেকে সোমবার (২০ জানুয়ারি) রাত ১টার দিকে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরবর্তীতে সুরতহাল প্রতিবেদনের পর করে মঙ্গলবার ভোরে ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহটি শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় নিহত শিশুর সৎ মা শিউলী বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অপরদিকে শিশুর বাবার নাম হাফিজুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানান, সুরাইয়ার মা জাকিরনের সাথে তার তার বাবা হাফিজুল ইসলামের কিছুদিন আগে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। পরে হাফিজুর শিউলিকে বিয়ে করেন। এরপর থেকে সৎ মা শিউলির সাথেই থাকত সুরাইয়া।

কিন্তু আগের ঘরের সন্তানকে কোন ভাবেই মেনে নিতে পারেনি শিউলি। ফলে কোন অযুহাত পেলেই শুরু হয় তার উপর নির্যাতন। অবশেষে নির্যাতনের এক পর্যায়ে মারা যায় সুরাইয়া- অভিযোগ এলাকাবাসীর।

এ বিষয়ে এসআই মোশারফ বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সৎ মায়ের নির্যাতনের কারণেই সুরাইয়ার মৃত্যু হয়েছে’। সুরতহাল রির্পোটে সুরাইয়ার শরীরের বিভিন্ন স্থানে নতুন ও পুরাতন একাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় অভিযুক্ত সৎ মা শিউলি বেগমকে গ্রেফতার করো হয়েছে। অপরদিকে আইনি প্রক্রিয়া শেষে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য সকালে মরদেহটি শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে দক্ষিণখান থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মৌসুমী বলেন, ‘শিশুটির মা জাকিরুন বেগমের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। উক্ত মামলায় হাফিজুল ও শিবলীকে আসামি করা হয়েছে। শিবলীকে গ্রেফতার করা হলেও হাফিজুল পলাতক বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Read Previous

গণতন্ত্র সূচকে ৮ ধাপ অগ্রগতি বাংলাদেশের

Read Next

বাবার পক্ষে ভোট চাইলেন আতিকুল ইসলামের মেয়ে

%d bloggers like this: