শিরোনাম
বাংলাদেশে দরিদ্রসীমার নিচে মানুষের সংখ্যা কমলেও, গৃহহীন মানুষের সংখ্যা এখন ও কমেনি পাঁচ ক্রিকেটারকে ‘স্পেশাল অ্যাওয়ার্ড’ দিলেন পাপন নামাজ পড়তে সমস্যা হওয়ার কারনে অভিনয় ছাড়লেন নায়িকা মুক্তি চঞ্চল-শাওনের ভাইরাল ‘যুবতী রাধে’ গান নিয়ে বেধেছে বিতর্ক হয়েছেন মাস্ক না পরলে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সেবা পাওয়া যাবে না বলে নির্দশনা দিয়েছেন সরকার ১ নভেম্বর থেকে মাধ্যমিকের সিলেবাস শুরু হতে যাচ্ছে, ৮ নির্দেশনা জারি সাংবাদিকদের মানুষের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন: মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আজ শেরে বাংলা আবুল কাশেম ফজলুল হক এর ১৪৭তম জন্মবার্ষিকী শহরের আদলে হবে গ্রাম, একটি মাস্টারপ্লান গ্রহণ করেছে স্থানীয় সরকার এমএলএম ব্যবসার মাধ্যমে অসহায় মানুষদের লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে “এসএম ট্রেডিং”
ইউরোপীয় ইউনিয়নের নতুন সিদ্ধান্তে আরও চাপে ইরান – প্রথম বেলা

ইউরোপীয় ইউনিয়নের নতুন সিদ্ধান্তে আরও চাপে ইরান

ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসতে চলেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে এই পরমাণু চুক্তি সম্পন্ন হয়েছিল। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানির তরফ থেকে সম্প্রতি এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে।

এই সিদ্ধান্তের ফলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ইরানের পরমাণু চুক্তি বাতিল হয়ে যাবে। ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি নিয়ে অস্থিরতা ছিলই। ইউরোপীয় ইউনিয়নের এই সিদ্ধান্তে এই অস্থিরতা আরও বাড়বে বলেই ধরে নেওয়া যায়।

সূত্রের খবর, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ইরানের পরমাণু চুক্তি সম্পূর্ণ বাতিল হতে পারে। যদি তাই হয়, সেক্ষেত্রে তেহরানের ওপর ইউরোপীয় নিষেধাজ্ঞা বলবত্‍‌ হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি সূত্র জানাচ্ছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে যুদ্ধপরিস্থিতির কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। ইরান এখন যে পথে এগোচ্ছে, তাতে আর এক বছরের মধ্যেই পরমাণু বোমা বানিয়ে ফেলবে। জার্মানি, রাশিয়া, চীন, ফ্রান্স ও ব্রিটেনসহ পরমাণু চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী ছ’টি দেশের প্রতিনিধিরা বৈঠকে বসে এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।

২০১৫ সালে ইরান বিশ্বের ছ’টি দেশের সঙ্গে একটি দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিতে আসতে সম্মত হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন এবং রাশিয়া। অর্থাৎ পি ফাইভ প্লাস ওয়ান নামে পরিচিত পরাশক্তিগুলো ছিল এই চুক্তির অংশীদার।

তবে চুক্তি ভেঙে ইরান ইউরেনিয়ামের (চিকিৎসা ও বিদ্যুৎ উৎপাদন কাজে ব্যবহার) মজুদ বাড়াতে থাকে। ২০৩১ সাল পর্যন্ত ইরানকে কেবলমাত্র কম সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদনের অনুমতি দেয়া হয়েছে, যার মাত্রা হবে তিন থেকে চার শতাংশ। কিন্তু এই প্রতিশ্রুতি রাখেনি ইরান। তাই চুক্তি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

 

Read Previous

জায়রাকে যৌন হেনস্থাকারীর ৩ বছরের জেল

Read Next

বিয়ের দু’সপ্তাহ পরে জানা গেল কনে আসলে ছেলে!

%d bloggers like this: