দলীয় মনোনয়ন পেলে ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে লড়বেন উত্তরা থানা যুবদলের সাবেক সভাপতি আজমল হুদা মিঠু

বিশেষ প্রতিনিধিঃ আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এর নির্বাচনে নিজ দল বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পেলে ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে লড়তে চান উত্তরা থানা যুবদলের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপি নেতা উত্তরার তরুণ রাজনীতিবীদ ও সমাজসেবক আজমল হুদা মিঠু । বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের উত্তরা থানার সাবেক সভাপতি আজমল হুদা মিঠু বর্তমানে উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপির সংগ্রামী নেতা । যুবদলের রাজনীতি দিয়েই রাজনীতির হাতেখড়ি তার।

Image may contain: 8 people, including Ferdous Mojumder Masum and Afaz Uddin

গত প্রায় ১যুগেরও বেশী সময় ধরে আওয়ামী দুঃশাসনের বিরুদ্ধে রাজপথের সংগ্রামে দৃঢ়পদ তিনি। অত্যাচার নির্যাতন সয়েছেন বারবার, মিথ্যা মামলার আসামি হয়ে জেল খেটেছেন বারংবার, হাজিরা দেন প্রায় ৭৫ টি মামলার। তার বাড়ীতে ছাত্রলীগ, যুবলীগ হামলা করেছে , ভাংচুর করেছে, ভয়ভীতি দেখিয়েছে, হুমকি দিয়েছে প্রাননাশের, সব কিছু মাড়িয়ে তিনি এগিয়ে চলেছেন সামনের পানে। শহীদ জিয়ায় আদর্শ বুকে ধারন করে নির্ভীক চিত্তে পথ চলেছেন, কখনো পিছু হটেন নি। নিয়মিত নেতা কর্মীদের খোজ খবর নিয়েছেন, মামলায় জর্জরিত কর্মীদের অর্থ সহায়তা দিয়েছেন মামলা চালাতে। যে কোন সমস্যায় তাদের পাশে থেকেছেন। যার ফলে নিজ দলীয় নেতা কর্মীদের পাশাপাশি এলাকাবাসীর কাছেও তিনি সমধিক জনপ্রিয় একজন ব্যাক্তি। লিয়াজো করে চলার অনেক সুযোগ তার ছিলো কিন্তু তিনি নিজ আদর্শচ্যুত হননি কভু। ঢাকা ১৮ আসনের রাজনৈতিক প্রান পুরুষ জন মানুষের আস্থার প্রতীক এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন তার রাজনৈতিক অভিভাবক। তার দেখানো পথেই দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে সংগ্রাম করে যাচ্ছেন যুবদল উত্তরার সাবেক সভাপতি আজমল হুদা মিঠু। দলের প্রয়োজনে সব সময় সামনের কাতারে থেকে রাজপথের প্রতিটি কর্মসূচি বাস্তবায়নে আজমল হুদা মিঠু একজন অগ্র সৈনিক।

Image may contain: 13 people, including Afaz Uddin

ঢাকা সিটি কর্পোরেশন উত্তরের ১নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয় নেতাদের তালিকায় আজমল হুদা মিঠু অগ্রগন্য। নিজ গুনের সমাহারে আজমল হুদা মিঠু এলাকার মানুষের কাছে স্বচ্ছ সাদা দীলের অতিপ্রিয় মানুষ। সম্প্রতি দৈনিক প্রথম বেলাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে উত্তরা থানা যুবদলের সাবেক সভাপতি আজমল হুদা মিঠু বলেন, “দল থেকে যদি মনোনয়ন দেয় তবে নির্বাচনে প্রার্থী হতে আমি একান্ত আগ্রহী। এলাকাবাসী আমাকে নির্বাচন করতে উৎসাহ দিচ্ছেন, কিন্তু দল নমিনেশন না দিলে নির্বাচন করার ইচ্ছে আমার নেই। এছাড়া দলের জন্য যেকোন ত্যাগ স্বীকার করতেও আমি রাজি আছি।”

Image may contain: 15 people, people smiling

দল থেকে মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে কতটুকু আশা রাখেন? প্রশ্ন করা হলে আজমল হুদা মিঠু জানান, “হ্যা অবশ্যই আমি মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। কেননা আমি রাজনৈতিক জীবনের শুরু থেকেই বাংলাদেশের জনতার জনপ্রিয় দল জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির একজন একনিষ্ঠ কর্মী। অবিভক্ত উত্তরা থানা যুবদলের আমি সভাপতির দায়িত্ব সফলতার সাথে পালন করেছি, বর্তমানে আমি উত্তরা পশ্চিম থানা বিএনপির সাথে রয়েছি। তাই দল থেকে মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আমি সর্বদাই আশাবাদী।” কেননা, আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে এলাকার মানুষ ও সমর্থকদের বিশ্বাস এবং আস্থা নিয়েই পথ চলছি।”

Image may contain: 13 people

উল্লেখ্য যে, গত ৩ নভেম্বর বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কর্তৃক দুই সিটি নির্বাচনের সময় নির্ধারণের মাস ঘোষণা করেছেন। মাত্র দুই মাস পর আগামী বছরের জানুয়ারিতেই ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ দুই সিটি নির্বাচনেই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হবে। চলতি মাস নভেম্বরের ১৮ তারিখের পর যেকোনো দিন তফসিল ঘোষণা করা হবে। গত রবিবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) বৈঠক শেষে ইসি সচিব মো. আলমগীর সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

Read Previous

আসন্ন ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৯নং ওয়ার্ডে আলোচনায় হাবিবুল্লাহ মাহবুব

Read Next

রাজধানীর উত্তরখান ও যাত্রাবাড়ী থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ পাঁচ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

%d bloggers like this: