শিরোনাম
তুরাগে ড্রেন নির্মাণে পুলিশের বাঁধাঃ দুই ইউপি মেম্বার ও পুলিশের মধ্যে হট্রোগোল – প্রথম বেলা

তুরাগে ড্রেন নির্মাণে পুলিশের বাঁধাঃ দুই ইউপি মেম্বার ও পুলিশের মধ্যে হট্রোগোল

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ॥ মোল্লা তানিয়া ইসলাম তমা : রাস্তায় জলাবদ্বতা ও বাড়িঘরের পানি নিস্কাশনের হাত থেকে রক্ষা পেতে রাজধানী তুরাগের নলভোগ গ্রামের স্থানীয় এলাকাবাসিরা স্থানীয় সাবেক দুই ইউপি মেম্বার ও আওয়ামীলীগের নেতারাকর্মীরা পুলিশের বাঁধার সম্মুখিন হয়েছে। এসময় স্থানীয় ইউপি মেম্বার ও আওয়ামীলীগ সমর্থিত নেতাদের সাথে তুরাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নির্মলের মধ্যে কয়েকদফা হট্রোগোল ও বাকবিতন্ড হয়।
আজ শনিবার দুপুর সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানী তুরাগ থানা ডিএনসিসি ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড নলভোগ গ্রামের মেইনরোডে ভুলুর বাড়ির পশ্চিম পাশে এঘটনা ঘটে।
সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, আজ শনিবার দুপুর ১১টার দিকে রাজধানী তুরাগ থানা ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড নলভোগ গ্রামের মেইনরোডে ভুলুর বাড়ির পশ্চিম পাশে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি মেম্বার মো: কফিল উদ্দিন ও ৭ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার আবুল হোসেন মৃধা, উত্তরা-তুরাগ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তফা মাতাব্বর ও ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগনেতা তৈয়্যাবুর রহমানের নেতৃত্বে প্রায় ৩০জন নেতাকর্মী ও স্থানীয় বাসিন্দারা একত্রিত হয়ে সড়কের জলাবদ্বতার হাত থেকে রক্ষা পেতে রাস্তার পাশে ড্রেন নির্মাণ সহ মোটা প্লাস্টিক পাইপ বসাতে নির্মাণ কাজ করছিল। এসময় তুরাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নির্মল এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ কোন ধরনের অভিযোগ ছাড়াই বিনা অযুহাতে ক্ষমতার বলে রাস্তার পাশে ড্রেন নির্মাণে বাঁধা দেয়। এক পর্যায়ে উক্ত এসআই নির্মল নির্মাণ শ্রমিকদেরকে কাজ না করে চলে যেতে বলেন। পরবর্তীতে খবর পেয়ে স্থানীয় সাবেক দুই ইউপি মেম্বার ও আওয়ামীলীগ-যুবলীগ নেতা সহ এলাকাবাসিরা ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে কথাকাটাকাটি, বাকবিতন্ড ও হট্রোগোলের সৃষ্টি হয়।
আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি মেম্বার মো: কফিল উদ্দিন এই প্রতিবেদককে ঘটনাস্থলে জানান, অল্প বুৃষ্টির পানিতে তুরাগের নলভোগ গ্রামের মেইনরোড তলিয়ে যায়। রাস্তার জলাবদ্বতার সৃষ্টি হয়। স্থানীয় বাড়ি ঘরের পানি রাস্তায় জমে থাকে। ফলে স্থানীয় বাসিন্দারা চরম জলাবদ্বতার সম্মুখিন হতে হয়। সে কারণে আমিও আমার এলাকাবাসিরা পানির এই দুর্ভোগ থেকে রক্ষা পেতে সকলে মিলে ড্রেন তৈরী করছিলাম।


উত্তরা-তুরাগ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তফা মাতাব্বর এই প্রতিবেদককে জানান, আমরা সাবেক ইউপি মেম্বার মো: কফিল উদ্দিনের নেতৃত্বে রাস্তার পাশে ড্রেন ও প্লাস্টিকের পাইপ বসাতে গেলে তুরাগ থানার এসআই নির্মল আমাদেরকে না জানিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিলে এঘটনার সৃষ্টি হয়।
তিনি আরও জানান, বিষয়টি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও তুরাগ থানা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি বীরমুক্তিযোদ্বা আলহাজ নাসির উদ্দিন সহ তুরাগ থানার ওসিকে অবহিত করা হয়েছে। এই রাস্তাটি এক সময় ৬ থেকে ৭ ফিট ছিল। এখন এটি ১৪ ফুট তৈরী করা হয়েছে।
এব্যাপারে তুরাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নির্মল এই প্রতিবেদককে বলেন, রাস্তার মধ্যে যানজট সৃষ্টি ও মাটি পড়ে থাকার কারণে ড্রেনের কাজটি বন্ধ করা হয়। ঘটনাটি তুরাগ থানার ওসি ও উত্তরা-তুরাগ জোনের এসি স্যারকে জানানো হয়েছে।
তিনি আরও জানান, ওসি স্যার আমাকে বলেছেন,নির্মাণ কাজটি দিনের বেলায় নয়, রাতের বেলায় করতে বলেছেন।

0 Reviews

Write a Review

Read Previous

ইতালিতে বাংলাদেশের সরকারের প্রতিনিধি দলের সাথে রোমের সিটি কর্পোরেশনের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত

Read Next

মুরাদনগর সদরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ছয় মোটর সাইকেলসহ দুই দোকানে ক্ষতি ২০ লাখ

%d bloggers like this: